জামালপুরের বন্যার পরিস্থিতি আরো অবনতি

জামালপুর প্রতিনিধি:

যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ৮৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও টানা ভারী বর্ষণে জামালপুরের বন্যা পরিস্থিতির আরো ভয়াবহ রুপ ধারন করেছে। জেলার সাতটি উপজেলায় ৪৬টি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে ।বন্যার পানিতে পরে দুই উপজেলায় দুই শিশু মারা গেছে ।

গত ২৪ ঘন্টায় যমুনার পানি ৬ সেন্টিমিটার বেড়ে মঙ্গল বার সকালে যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ৮৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যমুনার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করা জেলার সাত উপজেলার ৪৬টি ইউনিয়ন বন্যায় প্লাবিত হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে পুকুরের মাছ ,গরুর খাবার, বির্স্তিণ ফসলেন মাঠ।বন্ধ হয়ে গেছে অধিকাংশের বেশি সড়ক পথের যোগাযোগ ব্যবস্থা। আশ্রয়ের জন্য বানভাসা মানুষগুলো পরিবারের স্বজনদের নিয়ে উচঁ সড়ক ও ব্রীজে অবস্থান নিয়েছে ।পানি বৃদ্ধির কারনে প্রায় একশত পাঞ্চাশ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো তলিয়ে গেছে।

জামালপুরে বন্যা কবলিত এলাকায় প্লাবনের দুর্গতিতে পরেছে ৬৬ হাজার পরিবারের প্রায় ২লাখ ৫০হাজার মানুষ। এদিকে পানি বাড়ার সাথে সাথে বিশুদ্ধ পানি ও খাবারের সংকট দেখা দিয়েছে।বন্যা আক্রান্ত অসহায় মানুষেরা বলছে তাদের কাছে এখন ত্রান পৌছেনি।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক জানিয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যা কবলিত অসহায় মানুষদের জন্য ৬০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ৫ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে । বন্যা কবলিত এলাকায় চিকিৎসা সেবা দিতে ৩৮টি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে ।খোলা হয়েছে ৪৬১টি আশ্রায় কেন্দ্র মানুষ যেকোন সময় এই কেন্দ্রে উঠতে পারবে । বন্যা মোকাবেলা করার মত যথেষ্ট খাবার মজুত আছে ।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচাল মোঃ আমিনুল ইসলাম জানায়, জেলায় বন্যায় প্লাবিত হয়েছে কৃষি জমির পরিমান ২৩২০ হেক্টর ।

জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী মোঃ আবু সাঈদ জানান,উজানে পানি কমতে শুরু করেছে তাই একদিনের মধ্যে জামালপুরের বন্যার পানি কমতে শুরু করতে পাবে । এখন পর্যন্ত যমুনা নদীর পানি স্থির অবস্থান আছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: