দশমিনায় ৩ দোকানীর ১৩ হাজার জরিমানা

দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার করোনা মহামারিতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মানস চন্দ্র দাস পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতে তিন দোকানীকে ১৩হাজার টাকা জড়িমানা করেছে রোববার (২৮জুন) সন্ধ্যা ৭টা। উপজেলা পরিষদ চত্বর এলকায় সংক্রামন রোগ প্র. নি. নি. ২০১৮ এর ২৫(খ) ধারায় গাজী স্টোর্সসহ তিন দোকানীর এ জড়িমানা করেন।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মানস চন্দ্র দাস বলেন, সকল ব্যবসায়ীকে দৃশ্যমান স্থানে পণ্যের মূল্য তালিকা সঠিকভাবে প্রদর্শন করতে হবে, কারসাজি করে পণ্যের দাম বৃদ্ধি না করতে পারে, পাইকারি ক্রয়ের ভাউচার সংরক্ষণ ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করা। প্রতিটি নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের যথেষ্ট মজুদ ও সরবরাহ আছে বলেও জানান। এছাড়া জনস্বার্থে প্রশাসনের এ বাজার মনিটরিং বরাবরের ন্যায় অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান। থানা পুলিশের এস.আই আব্দুর রবসহ একটি টিম এ কাজে সার্বিক সহযোগিতা করেন।

এ দিকে, ভ্রাম্যমান আদালতে দোষী সাবস্ত গাজী মনির অভিযোগ করে বলেন, আমি দোকানের সার্টার বন্ধ করে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কাজ করার সময়ে ভ্রাম্যমান আদালত বসানো হয়েছে। এজন্য ধারদেনা করে ৫ হাজার টাকা পরিশোধ করেছি। করোনা সময়ে দোকানে বেচাবিক্রি কম থাকায় খুব চিন্তায় পরেছি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: