পটুয়াখালী‌তে দুটি বাড়ী লকড ডাউন

পটুয়াখালী প্র‌তি‌নি‌ধি:
অসুস্থ অবস্থায় ২ ব্যাক্তির মৃত্যু হওয়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে পটুয়াখালী শহর ও শহরতলীর দু‌টি বা‌ড়ি লকড ডাউন ঘোষনা ক‌রে‌ছে জেলা প্রশাসন।

র‌বিবার দুপু‌রে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লতিফা জান্নাতী জেলা পুলিশের সহযোগীতায় বাড়ী দু‌টি লকড ডাউন ঘোষনা করে লাল পতাকা টানিয়ে দেন। এসময় পরিবারের সদস্যদের জন্য খাদ্যশষ্য সরবরাহ করা হয়।

সি‌ভিল সার্জন ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর হো‌সেন জানান, শ‌নিবার বিকা‌লে শহ‌রের মাদবর বাড়ী এলাকায় আঃ র‌শিদ না‌মের ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ জ‌ন্ডিসসহনানা সমস্যায় ভুগে মারা যায়। পরব‌র্তি‌তে স্থানীয়‌দের স‌ন্দেহ হ‌লে তার মৃত্যু ক‌রোনা ভাইরাসে কিনা সেটা নি‌শ্চিত করার জন্য রাতে তার নমুনা সংগ্রহ ক‌রে ঢাকায় প্রেরন করা হয়। যে কার‌ণে তার রি‌পোর্ট না আসা পর্যন্ত আপদকালীন সময় পর্যন্ত ওই বাড়ী‌টি জেলা প্রশাস‌নের নি‌র্দেশক্র‌মে লকড ডাউন করা হয়। মোঃ আব্দুর রশিদ ভোলা জেলার লালমোহন উপজেলার বাসিন্দা। তিনি পেশায় একজন রিক্সা চালক ছিলেন। অসুস্থ্য অবস্থায় চিকিৎসা নিতে গত ২০ দিন আগে তিনি মেয়ের বাড়িতে আসেন।

অপরদিকে শনিবার শেষ‌ বিকা‌লে পটুয়াখালীর ২৫০ শয্যা ‌বিশিষ্ট হাসপাতাল থে‌কে সদর উপ‌জেলার টাউন বহালগা‌ছিয়া এলাকার মোঃ জা‌কির হো‌সেন না‌মের এক ব্য‌ক্তিকে শ্বাসকষ্ট, জ্বর ও স‌র্দিকা‌শি নি‌য়ে ব‌রিশাল শেবা‌চি‌মের আইসোলেশ‌নে ভ‌র্তির পর রাতে সে মারা যায়। করোনা ভাইরাস সংক্রমনের লক্ষন থাকায় তার বাড়ীও লকড ডাউন করা হ‌য়ে‌ছে।

গত ২৪ ঘন্টায় পটুয়াখালীতে নতুন করে কোন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়নি। কোয়ারেন্টিন শেষ হয়েছে ৪৬ জনার। বর্তমানে জেলায় মোট ৩১৬ জন হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।

করোনা গুজবে যাতে বাজার অস্থিতিশীল না হয় সেজন্য বাজার মনিটরিং- এর পাশাপাশি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক প্রচার ও বিভিন্ন সামগ্রী বিতরন করছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: