রাঙ্গাবালীতে করেনটাইন উপেক্ষা করে চলছে শুটকি প্রক্রিয়াকরণের কাজ

সঞ্জিব দাস,গলাচিপা, পটুয়াখালী:

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে করেনটাইন না মেনে শুটকি পল্লীতে ৮শতাধিক লোক জড়ো করে শুটকি প্রক্রিয়া করণের অভিযোগ উঠেছে। প্রভাবশালী ওই শুটকি ব্যবসায়ীরা স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা, জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এই কর্মযজ্ঞ চালনো হচ্ছে।

এই নিয়ে শুটকি পল্লী আশপাশে গ্রামে করোনা আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। প্রশাসনের কাছে অবহিত করে প্রতিকার না পেয়ে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ। সূত্রজানায়, রাঙ্গাবালী উপজেলার চর মোন্তাজ ইউনিয়নের বৌবাজার, চর মর্গেট ও চর আন্ডায় প্রায় অর্ধশত শুটকি খলা রয়েছে। এসব খলা এক এক বার ৭০ থেকে ৮০ মন শুটকি প্রক্রিয়াজাত করা হয়। প্রতিদিন গড়ে ৮/৯ শত শ্রমিক এসব খলায় কাজ করে।

এদের অধিকাংশই নারী ও শিশু শ্রমিক। এসব শ্রমিকরা ১কেজি শুটকি মাছে ৫ থেকে ৭ টাকা মজুরী পেয়ে থাকে। চর মোন্তাজ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শুটকি ব্যবসায়ি মো.হানিফ মিয়া, কামাল বেপারী, আল আমীন আকন, আব্দুল মৃধা, হালিম খাঁ অধিকাংশ শুটকি ব্যবসা নিয়ন্ত্রন করে। চর মোন্তাজ বৌ বাজার গ্রামের শ্রমিক হাসিনারা জানান, মাছের বোড কম থাকলে কেজিতে ৫ টাকা পাই। আবার বোড বেশী হলে ৭/৮ টাকাও পাই। চর আন্ডারে জেলে রফিক মাঝি জানায়, চর মোন্তাজ ও অন্যান এলাকা মিলে উপকূল এলাকায় এমৌসুমে শতাধিক টাইগার চিংড়ির বোড রয়েছে।

এসব বোডে এক এক জোবায় ৮০ থেকে ৯০ মন টাইগার চিংড়ি ও রাবিশ ধরা পড়ে। এসব চিংড়ি ও রাবিশ শুটকি করে যশোর ও চট্টগ্রামে বিক্রি করা হয়। অধিকাংশ শুটকি পল্ট্রি ফিট ও মাছের খাবার হিসেবে ব্যবহার করা হয়। নাম প্রকাশ না করা শর্তে স্থানীয় এক মানবাধিকার কর্মী জানায়, কম মজুরীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শুটকি শ্রমিকদের কাজ করতে হয়।

এসব শ্রমিক নারী ও শিশু হওয়ায় তাদের স্বাস্থ্য ঝুকি আরও বেশী। আর সারা পৃথিবী ব্যাপি করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের এই সময় একত্রে এতো লোক জড়ো করানোর ফলে ওই এলাকার লোকজনকে স্বাস্থ্য ঝুকিতে ফেলতে পারে। চর মোন্তাজ ইউ/পি চেয়ারম্যান ও শুটকি মাছ ব্যবসায়ী মো.হানিফ মিয়া মুঠো ফোনে জানান, শুটকি পল্লীতে কোন শ্রমিক কাজ করছে না। কিছু অসাধু লোক মিথ্যা অভিযোগ তুলছে।

রাঙ্গাবালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মাশফাকুর রহমান জানান, এলাকাটি দূর্গম। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: